মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয় গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার
মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
সর্ব-শেষ হাল-নাগাদ: ২৭ August ২০১৭

কন্যা শিশুরা দুর্যোগ ও বন্যায় সবচেয়ে বেশি ঝুকিতে আছে - মেহের আফরোজ চুমকি, এম.পি মাননীয় প্রতিমন্ত্রী, মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়।


প্রকাশন তারিখ : 2017-08-27

 

ঢাকা, ২৩  আগস্ট, ২০১৭

 

মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী মেহের আফরোজ চুমকি এম.পি বলেছেন, কন্যা শিশুরা  দুর্যোগ ও বন্যায় সবচেয়ে  বেশি ঝুকিতে আছে। বন্যা ও প্রাকৃতিক  দুর্যোগে কন্যা শিশুরা পুনর্বাসন কেন্দ্রে  অথবা  নিজ গৃহে অনেক সময় যৌন নির্যাতনের শিকার হয় । এই বিষয়ে স্থানীয় জনপ্রতিনিধি সহ সকলকে সজাগ দৃষ্টি  রাখতে  হবে। তিনি আজ সকালে রাজধানীর সিরডাপ  মিলনায়তনে  ওয়ার্ল্ড  ভিশন , ইউরোপিয়ান  ইউনিয়ন ও খাদ্য  অধিকার  বাংলাদেশের  যৌথ আয়োজনে সামাজিক নিরাপত্তা  কার্যক্রম বাস্তবায়ন নীতি ও অভিজ্ঞতা বিষয়ক কনভেনশনে  প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এ কথা বলেন।

 

খাদ্য অধিকার  বাংলাদেশ ও পিকে এসএফ এর চেয়ারম্যান ড. কাজী খলীকুজ্জামান  আহমেদের  সভাপতিত্বে কনভেনশনে আরও উপস্থিত ছিলেন সমাজসেবা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক  গাজী মোহাম্মদ  নুরুল কবির , বাংলাদেশ  উন্নয়ন গবেষনার সিনিয়র রিচার্স ফেলো ড. নাজনীন আহমেদ, ইউরোপিয়ান  ইউনিয়নের রুরাল ডেভেলপমেন্টের  টিম লিডার  ডোরসে ভোসে , খাদ্য  অধিকার  বাংলাদেশের  সাধারন সম্মাদক  মহলিন আলী প্রমুখ।

 

প্রতিমন্ত্রী বলেন দরিদ্র  বিমোচন  এই সরকারের  প্রথম ও প্রধান  উদ্দেশ্য।  এই  জন্য সরকার  সামাজিক নিরাপত্তা  কর্মসূচি  কার্যক্রম জোরদার করেছে।  এই খাতে  সরকারের ব্যায় ৫৪০০০ কোটি টাকা ।  যা বাজেটের ১৩ শতাংশ। তিনি বলেন  কোন সম্প্রদায় ও দলের  লোককে  পিছিয়ে  রাখলে দেশ  দরিদ্র মুক্ত যাবেনা । সামাজিক নিরাপত্তা কর্মসূচির সুবিধাভোগী  নির্বাচনে  সকলকে  সমান দৃষ্টিতে  দেখতে হবে। প্রতিমন্ত্রী বলেন সুবিধাভোগী  নির্বাচনে  অনেক সময়  লক্ষ্য করা যায়  একই পরিবারের  একাধিক  ব্যক্তি  বিভিন্ন  সুবিধা  নিচ্ছে । পক্ষান্তরে  অনেক পরিবারের  কেউই  কোন সুবিধা পাচ্ছেনা । এই বিষয়ে স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের আরও সচেতন হতে হবে এবং স্বচ্ছতা  নিশ্চিত  করতে হবে।  এই সমস্যা সমাধানে সরকার  একটি  ডাটাবেজ তৈরির কাজ  করছে।  কানভেনশনে  নিম্নলিখিত  দাবি সমূহ উত্থাপিত হয়।

 

১. ২০১৭-২০১৮ অর্থ বছরের মধ্যে  অতিদরিদ্র  ডাটাবেজ সম্পন্ন  করে সামাজিক নিরাপত্তা  কর্মসূচির উপকারভোগীদের  স্বচ্ছ তালিকা  করা;

২. প্রকল্প এলাকায়  উপকারভোগী  নির্বাচনে  অনিয়মের ক্ষেত্রে  ইউপি‘তে ‘অভিযোগ/পরামর্শ বক্স’ স্থাপন করা ।   ৩. ইউনিয়ন পরিষদ ও পৌরসভার নির্দিষ্ট স্থানে  উপকারভোগীদের  তালিকা  প্রদর্শনের  ব্যবস্থা  নিশ্চিত করা ;

৪. সকল  কর্মসূচির  বাস্তবায়ন প্রক্রিয়া  মনিটরিং নিশ্চিত করা;

৫. ভিজিডি কর্মসূচির  উপকারভোগীদের (দুঃস্থ নারীদের ) আর্থ-সমাজিক উন্নয়ন  ত্বরান্বিত করার লক্ষ্যে চলমান সহয়তার পাশাপাশি  আয়বর্ধক  কার্যক্রম  বাস্তবায়নে সহয়তা করা ;

৬. অন্তর্ভূক্তিমুলক উন্নয়ন  নিশ্চিত করতে  সমতল এলাকায় বসবাসরত  ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্টির  জন্য সামাজিক  সুরক্ষা কার্যক্রমের আওতায়  বিশেষ কর্মসূচি  গ্রহন করা;

৭. বিদ্যমান নীতিমালায়  স্থানীয়  পর্যায় কমিটিতে (ইউনিয়ন, উপজেলা ও জেলা পর্যায়)      উপকারভোগীদের  মধ্য থেকে  প্রতিনিধি  রাখার বিধান করা।

 

 

           ( মোহাম্মদ আবুল খায়ের )

  জনসংযোগ কর্মকর্তা

  মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়

ফোনঃ ৯৫৪৫২২৫, মোবাইলঃ ০১৭১৬-০৬৬৮৮৮


Share with :
Facebook Facebook